West Bengal

Anubrata Mondal Daughter: বাড়ি গিয়ে নোটিস সিবিআইয়ের, কথা বলার অবস্থায় নেই জানালেন ‘বিপর্যস্ত’ কেষ্ট-কন্যা

385796 anubrata sukanya

প্রসেনজিৎ মালাকার: সিবিআই স্ক্যানারে এবার অনুব্রত-কন্যা সুকন্যা। বাড়ি গিয়ে কেষ্ট-কন্যাকে নোটিস ধরাল সিবিআই। গোরুপাচারকাণ্ডে এবার অনুব্রতর মেয়ে সুকন্যা মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। তাঁর সম্পত্তির হিসেব জানতে চায় সিবিআই। কিন্তু তিনি কথা বলতে নারাজ বলে সিবিআই আধিকারিকদের জানান কেষ্ট-কন্যা সুকন্যা। ‘আমি কথা বলার অবস্থায় নেই, মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। সদ্য মা-কে হারিয়েছি। বাবা সিবিআই হেফাজতে।’ সিবিআই আধিকারিকদের কেষ্ট-কন্যা এমনটাই জানান বলে সূত্রের খবর। বুধবার সকালে সোয়া ১২টা নাগাদ অনুব্রত মণ্ডলের বোলপুরের বাড়িতে পৌঁছান সিবিআই আধিকারিকরা। বেশিক্ষণ না, মিনিট দশেক থাকেন তাঁরা। তারপরই বেরিয়ে যান। তখনই কেষ্ট-কন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে তাঁকে নোটিস ধরান তদন্তকারীরা।

প্রসঙ্গত, বুধবারই সিবিআই জানিয়ে দিয়েছিল যে, অনুব্রতর মেয়েকে বাড়িতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে সিবিআই। অনুব্রত মণ্ডলও তাঁর মেয়েকে সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে বলেন বলে সূত্রের খবর। যদিও, এদিন উল্টোপথেই হাঁটলেন কেষ্ট-কন্যা সুকন্যা। তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত জানিয়ে সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলতে নারাজ জানান সুকন্যা। সূত্রের খবর, অনুব্রত মণ্ডলের একাধিক নথিতে মেয়ের নাম পাওয়া গিয়েছে। সুকন্যার নামে বেশ কিছু সম্পত্তি রয়েছে বলেও অনুমান সিবিআই-এর। তদন্তকারী সংস্থার নজরে তাই সুকন্যা মণ্ডলের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট। উল্লেখ্য, বুধবার সকালে প্রথমে অনুব্রত মণ্ডলের অ্যাকাউন্ট্যান্টকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। বুধবার সকাল থেকেই অনুব্রত মণ্ডলের অ্যাকাউন্ট্যান্ট মণীশ কোঠারিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন তদন্তকারীরা। বোলপুরের পূর্বপল্লিতে সিবিআই ক্যাম্পে চলে জিজ্ঞাসাবাদ।

আরও পড়ুন, Anubrata Mandal Arrested: জানতাম মমতা পাশে দাঁড়াবেন, আইনজীবীকে বললেন আত্মবিশ্বাসী অনুব্রত

অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর মেয়ে, দুজনেরই অ্যাকাউন্টের কাগজপত্র সহ সবকিছু দেখাশোনা করতেন এই মণীশ কোঠারিয়া। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত অনুব্রত মণ্ডলের অ্যাকাউন্টে তেমন কোনও টাকাপয়সা পাওয়া যায়নি। কিন্তু তাঁর মেয়ে সুকন্যা মণ্ডলের নামে বিভিন্ন কোম্পানিতে বিপুল পরিমাণে টাকা লেনদেনের হদিশ মিলেছে। অ্যাকাউন্ট্যান্ট মণীশ কোঠারিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ওই টাকার উৎস সম্পর্কে জানতে চান সিবিআই আধিকারিকরা। ওই টাকার উৎস কী? কোথা থেকে এসেছে ওই টাকা? কীভাবে ওই টাকার আইটি রিটার্ন ফাইল করা হয়েছে? আইটি রিটার্ন ফাইল করার সময় কী কাগজপত্র-ই বা দেখানো হয়েছে? তার সবটাই এখন আতস কাচের তলায়। জানা গিয়েছে, মণীশ কোঠারিয়া-ই অনুব্রতর সমস্ত হিসেবপত্র সামলাতেন। তাঁর আইটি রিটার্ন ফাইল করতেন। এদিন সিবিআই আধিকারিকরা একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বোলপুর শাখাতেও যান।

(Amar Bangla Potika App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Amar Bangla Potika App)

bhartiya dainik patrika

Yash Studio Keep Listening

yash studio

Connect With Us

Watch New Movies And Songs

shiva music

Read Hindi eBook

ebook-shiva-music

Bhartiya Dainik Patrika

bhartiya dainik patrika

Your Search for Property ends here

suneja realtor

Get Our App On Your Phone!

X