Jharkhand

ঝাড়খণ্ড: নকশালরা রেলওয়ে সাইটে শ্রমিকদের মারধর করে, দুই ইঞ্জিনিয়ারকে অপহরণ করে, পুলিশে আগুন

sukma naxal attack 1585037513

ঝাড়খণ্ড: নকশালরা রেলওয়ে সাইটে শ্রমিকদের মারধর করে, দুই ইঞ্জিনিয়ারকে অপহরণ করে, পুলিশে আগুন


সুকমা নকশাল হামলা
– ছবি: এএনআই (ফাইল)

খবর শুনুন

আরবিএনএল (রিলায়েন্স ব্রডকাস্ট লিমিটেড) কোম্পানি ঝাড়খণ্ডের পাত্রাতু থেকে সোনানগর পর্যন্ত তৃতীয় লাইনের রেলপথ নির্মাণ করছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কোম্পানির কাটপুলিয়া সাইটে হামলা চালায় নকশালরা। সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত হামলা চলে। ঘটনাটি ঘটেছে টোরি এবং চাটার স্টেশনের মধ্যে দাগদাগি সেতুর কাছে। নকশালরা দুই শ্রেণীর শ্রমিক ও কর্মচারীদের মারধর করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও ততক্ষণে অন্ধকার হয়ে গেছে। তখন নকশালরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পঞ্চাশ রাউন্ড গুলি চালায়।

রাত ৯টার দিকে নকশালরা ঘটনাস্থল থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে দুই ইঞ্জিনিয়ারকে ফেলে যায়। নকশালরা প্রথমে দশটি গাড়িতে আগুন দেয়। এর মধ্যে রয়েছে দুটি রিং মেশিন, একটি জেসিবি, একটি হাইড্রা, একটি ট্রাক্টর, তিনটি বাইক। জেনারেটরেও আগুন ধরিয়ে দেয় নকশালরা।

এদিকে হামলার দায় স্বীকার করেছে রবীন্দ্র গাঞ্জুর দল। সূত্র জানায়, এ ঘটনায় কোম্পানি ব্যবস্থাপনার পনেরো কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। এসডিপিও সন্তোষ মিশ্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নকশাল হামলার শিকার শ্রমিকরা জানান, এ সময় ত্রিশজন শ্রমিক রেললাইন নির্মাণে নিয়োজিত ছিলেন। তখনই চাসিল নকশালরা পৌঁছে যায় এবং তারা দুই ইঞ্জিনিয়ারকে তাদের হেফাজতে নেয়। এরপর পাঁচ-ছয়টি নকশাল তাকে সঙ্গে নিয়ে যায়। এরপর তারা একত্রিত হয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মারধর শুরু করে। অনুমতি ছাড়া কাজ শুরু করলে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।

তিনি জানান, মাওবাদীরা শ্রমিকদের গাড়ি থেকে তেল তুলতে এবং গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। ফর্মও ছেড়েছেন। এতে লেখা আছে, এর পরেও কোম্পানিটি কাজ চালিয়ে গেলে জানমালের ক্ষয়ক্ষতির জন্য দায়ী থাকবে।

সম্প্রসারণ

আরবিএনএল (রিলায়েন্স ব্রডকাস্ট লিমিটেড) কোম্পানি ঝাড়খণ্ডের পাত্রাতু থেকে সোনানগর পর্যন্ত তৃতীয় লাইনের রেলপথ নির্মাণ করছে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কোম্পানির কাটপুলিয়া সাইটে হামলা চালায় নকশালরা। সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত হামলা চলে। ঘটনাটি ঘটেছে টোরি এবং চাটার স্টেশনের মধ্যে দাগদাগি সেতুর কাছে। নকশালরা দুই শ্রেণীর শ্রমিক ও কর্মচারীদের মারধর করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও ততক্ষণে অন্ধকার হয়ে গেছে। তখন নকশালরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পঞ্চাশ রাউন্ড গুলি চালায়।

রাত ৯টার দিকে নকশালরা ঘটনাস্থল থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে দুই ইঞ্জিনিয়ারকে ফেলে যায়। নকশালরা প্রথমে দশটি গাড়িতে আগুন দেয়। এর মধ্যে রয়েছে দুটি রিং মেশিন, একটি জেসিবি, একটি হাইড্রা, একটি ট্রাক্টর, তিনটি বাইক। জেনারেটরেও আগুন ধরিয়ে দেয় নকশালরা।

এদিকে হামলার দায় স্বীকার করেছে রবীন্দ্র গাঞ্জুর দল। সূত্র জানায়, এ ঘটনায় কোম্পানি ব্যবস্থাপনার পনেরো কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। এসডিপিও সন্তোষ মিশ্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নকশাল হামলার শিকার শ্রমিকরা জানান, এ সময় ত্রিশজন শ্রমিক রেললাইন নির্মাণে নিয়োজিত ছিলেন। তখনই চাসিল নকশালরা পৌঁছে যায় এবং তারা দুই ইঞ্জিনিয়ারকে তাদের হেফাজতে নেয়। এরপর পাঁচ-ছয়টি নকশাল তাকে সঙ্গে নিয়ে যায়। এরপর তারা একত্রিত হয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মারধর শুরু করে। অনুমতি ছাড়া কাজ শুরু করলে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।

তিনি জানান, মাওবাদীরা শ্রমিকদের গাড়ি থেকে তেল তুলতে এবং গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। ফর্মও ছেড়েছেন। এতে লেখা আছে, এর পরেও কোম্পানিটি কাজ চালিয়ে গেলে জানমালের ক্ষয়ক্ষতির জন্য দায়ী থাকবে।

#ঝডখণড #নকশলর #রলওয #সইট #শরমকদর #মরধর #কর #দই #ইঞজনযরক #অপহরণ #কর #পলশ #আগন

bhartiya dainik patrika

Yash Studio Keep Listening

yash studio

Connect With Us

Watch New Movies And Songs

shiva music

Read Hindi eBook

ebook-shiva-music

Bhartiya Dainik Patrika

bhartiya dainik patrika

Your Search for Property ends here

suneja realtor

Get Our App On Your Phone!

X