Kolkata

‘আসানসোল জেলে রাজার হালে ছিলেন, এবার…’ অনুব্রত প্রসঙ্গে কোন ইঙ্গিত সুকান্তর?

Sukanta Majumdar 166859959016x9 scaled

‘আসানসোল জেলে রাজার হালে ছিলেন, এবার…’ অনুব্রত প্রসঙ্গে কোন ইঙ্গিত সুকান্তর?

#ভেঙ্কটেশ্বর লাহিড়ী, কলকাতা: ‘অনুব্রত মণ্ডল যে কাজ করেছেন তাতে তাঁর তিহার জেলেই থাকা উচিত। ক’দিন আর টাকা খরচ করে তিহার জেল যাত্রা আদালতের মাধ্যমে আটকে  রাখবেন! অনেকদিন লোককে চরাম চরাম আর  গুড় বাতাসা খাইয়েছেন। আসানসোল জেলে তো রাজার হালে ছিলেন। এবার একটু তিহার  জেলের জল-হাওয়া খান। আমরা আগেও বলেছি এখনও বলছি। যারা দুর্নীতি করেছে তারা কেউই ছাড়া পাবে না। তা সে  যত বড়ই ধেড়ে ইঁদুর  হোক না কেন। যারা কয়লা চুরি করলো, গরু পাচার করলো, শিক্ষায় দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত  তারা কেউই বাঁচবে না। সবাইকে জেলে যেতেই হবে।’ অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লি নিয়ে যাওয়া  প্রসঙ্গে ঠিক এই ভাষাতেই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে জেরা করতে পারবে ইডি, অবশেষে রায়দান দিল্লির রাউজ অ্যাভিনিউ আদালতের। শুক্রবারই গরুপাচার কাণ্ডে বীরভূম তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের আবেদন খারিজ করে আদালত। অনুব্রত মণ্ডলকে ইডি মামলায় ‘অভিযুক্ত’ হিসেবে মান্যতা দেয় বিচারপতি বিবেক চৌধুরী। অনুব্রত মণ্ডলকে তিহার জেলে রেখে জেরা করা হবে।

উল্লেখ্য, গরুপাচার কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত অনুব্রত মণ্ডকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করতে চেয়ে দিল্লির রাউজ অ্যাভিনিউ আদালতে আবেদন দাখিল করেছিল ইডি। দিল্লি যাওয়া রুখতে সিবিআই এর পরে ইডির হাতে গ্রেফতার হওয়া অনুব্রত মণ্ডল দ্বারস্থ হয়েছিলেন দিল্লি হাইকোর্টের। অনুব্রতর হয়ে আদালতে আবেদন করেন আইনজীবী কপিল সিব্বল। আবেদনে বলা হয়, অসুস্থ অনুব্রত মণ্ডল। অসুস্থতার কথা বিবেচনা করে যাতে তাঁকে দিল্লি নিয়ে যাওয়া না হয়। দিল্লি হাই কোর্টের নির্দেশ ছিল, অনুব্রতের মামলার বিষয়ে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেবে রাউজ অ্যাভেনিউ আদালত। সেই অনুযায়ী শনিবার আদালতে মামলাটির শুনানি হয়। সকাল সাড়ে ১০টার পর শুনানি শুরু হয়েছিল। তা চলে প্রায় দেড় ঘণ্টা। কিন্তু  শেষরক্ষা হল না! অনুব্রত মণ্ডলের সমস্ত আবেদন খারিজ করে দিল দিল্লির রাউজ অ্যাভিনিউ আদালত। শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে জামিন মামলার শুনানিতেও প্রভাবশালী তকমায় অনুব্রতের আর্জি খারিজ করেছে আদালত।

শনিবার দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালতেও বিশেষ সুবিধা করতে পারেননি তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি। আসানসোল সংশোধনাগারে ইডি জেরার মুখে নাকি মুখ খোলেননি কেষ্ট। তাই তাঁকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জেরা করতে চায় তারা। কেষ্টর প্রাক্তন দেহরক্ষী সায়গল হোসেন এখন তিহার জেলে। আর গরু-মামলার অন্যতম অভিযুক্ত এনামুলও রয়েছে সেই রাজধানীতেই। সূত্রের খবর, অনুব্রতকে দিল্লি নিয়ে যাওয়ার পরে তিনজনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চান কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়োন্দারা।

দ্বারা প্রকাশিত:Rachana Majumder

প্রথম প্রকাশিত:

Tags: Sukanta Majumdar

Kolkata
#আসনসল #জল #রজর #হল #ছলন #এবর.. #অনবরত #পরসঙগ #কন #ইঙগত #সকনতর

bhartiya dainik patrika

Yash Studio Keep Listening

yash studio

Connect With Us

Watch New Movies And Songs

shiva music

Read Hindi eBook

ebook-shiva-music

Bhartiya Dainik Patrika

bhartiya dainik patrika

Your Search for Property ends here

suneja realtor

Get Our App On Your Phone!

X