Kolkata

গ্রামীণ আবাস যোজনার বাড়ি বণ্টন নিয়ে সতর্ক করল নবান্ন, অনিয়ম রুখতে যাচাই

nabanna 1 165149725816x9 scaled

গ্রামীণ আবাস যোজনার বাড়ি বণ্টন নিয়ে সতর্ক করল নবান্ন, অনিয়ম রুখতে যাচাই

#কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনার বরাদ্দ কেন্দ্রের থেকে পাওয়ার পরপরই এ বার সতর্ক নবান্ন। বাড়ি বণ্টনে যাতে কোনও অনিয়ম না হয়, তা নিয়ে জেলাশাসকদের বিশেষ সতর্ক করলেন মুখ্যসচিব। বাড়ি বন্টনের ক্ষেত্রে প্রাপকদের যাতে বিশেষভাবে যাচাইও করা হয় তা নিয়ে বৃহস্পতিবার জেলাশাসকদের বিশেষ নির্দেশ দিলেন মুখ্য সচিব।

প্রাথমিকের টেট নিয়ে এ দিন মুখ্যসচিব জেলাশাসক ও প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপারদের নিয়ে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকেই প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনা নিয়েও বলেন মুখ্যসচিব। কেন্দ্র থেকে প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনায় টাকা রাজ্য পেয়েছে বলে এ দিন বৈঠকে মুখ্যসচিব জানান জেলাশাসকদের। আগামী তিন মাসের মধ্যেই ১১ লক্ষ ৩৭ হাজার বাড়ি তৈরির কাজ যে শেষ করে ফেলতে হবে এ দিনের বৈঠকে সেটাও নির্দেশ দেন মুখ্যসচিব নবান্ন সূত্রে খবর।

প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক আবাস যোজনায় অধীনে বাড়ি তৈরি নিয়ে কেন্দ্রীয় পরিদর্শক দল একাধিক প্রশ্ন তুলেছিল। বিশেষত বাড়ি বন্টন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল কেন্দ্রীয় পরিদর্শক দল। দীর্ঘ কয়েক মাস বাদে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় কেন্দ্র থেকে টাকা রাজ্য পাওয়ায় এ বার আবাস যোজনার অধীনে বাড়ি বন্টন নিয়ে বিশেষ সতর্ক হতে চাইছে নবান্ন। তার জন্যই জেলাশাসকদের এই দিনের বৈঠকে বিশেষ করে সতর্ক করেন মুখ্যসচিব। আগামী তিন মাসের মধ্যে আবাস যোজনার অধীনে ১১ লক্ষ ৩৭ হাজার বাড়ি তৈরির কাজ শেষ হলেই পরবর্তী বছরের টাকা পাওয়া সম্ভব বলেই জেলাশাসকদের বৈঠকে জানান মুখ্যসচিব।

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় নীতির বিরোধিতায় সব রাজ্যে রাজভবন অভিযানের ডাক সংযুক্ত কিষাণ মোর্চারআরও পড়ুন: ‘এমন উপাচার্য পাঠানো হচ্ছে যাঁর আদর্শ আরএসএস’, বিশ্বভারতী নিয়ে বললেন ফিরহাদ

প্রসঙ্গত গ্রাম সড়ক যোজনার পর এবার গ্রামীণ আবাস যোজনাতেও কেন্দ্রীয় বরাদ্দ পেল রাজ্য। মোট ৮ হাজার ২০০ কোটি টাকা কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক রাজ্যকে দিচ্ছে বলেই নবান্ন সূত্রে খবর। মোট ১১ লক্ষেরও বেশি বাড়ির জন্য এই টাকা বরাদ্দ করা হচ্ছে বলেই জানা গেছে। মূলত গ্রামীণ আবাস যোজনাতে ৬০ শতাংশ টাকা দেওয়ার কথা কেন্দ্রের ৪০ শতাংশ খরচ করার কথা রাজ্যের। সেই অনুযায়ী কেন্দ্র ৮ হাজার ২০০ কোটি টাকা রাজ্যকে দিয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। বাকি টাকা রাজ্যেরই খরচ করার কথা। সেক্ষেত্রে প্রশাসনিক মহল মনে করছে পঞ্চায়েত ভোটের আগে এই ১১ লক্ষ বাড়ীর জন্য বরাদ্দ আশায় নিঃসন্দেহে স্বস্তি প্রশাসনিক মহলে। দীর্ঘদিন ধরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর জন্য দাবি করেছিলেন কেন্দ্রের কাছে। একাধিক বার সরব হয়েছেন কেন্দ্র রাজ্যের বরাদ্দ দিচ্ছে না।

কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল আবাস যোজনা নিয়ে ও রাজ্যে সরেজমিনে পরিস্থিতি ঘুরে দেখেছে। কেন্দ্রীয় প্রকল্প কেন কেন্দ্রের নামে হবে না, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে বিরোধীদল। গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনায় রাজ্য টাকা পেয়েছে। তারপরই ইতিবাচক সংকেত তৈরি হয়েছে বাকি টাকা পাওয়ার ক্ষেত্রে। যদিও ১০০ দিনের কাজের টাকা এখনও পর্যন্ত রাজ্য পায়নি। যা নিয়ে বারবার সরব হয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়াম থেকে ১০০ দিনের কাজের টাকা কেন দেওয়া হচ্ছে না তা নিয়ে সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

দ্বারা প্রকাশিত:উদ্দালক বি

প্রথম প্রকাশিত:

ট্যাগ: পশ্চিমবঙ্গ সরকার

Kolkata
#গরমণ #আবস #যজনর #বড #বণটন #নয় #সতরক #করল #নবনন #অনযম #রখত #যচই

bhartiya dainik patrika

Yash Studio Keep Listening

yash studio

Connect With Us

Watch New Movies And Songs

shiva music

Read Hindi eBook

ebook-shiva-music

Bhartiya Dainik Patrika

bhartiya dainik patrika

Your Search for Property ends here

suneja realtor

Get Our App On Your Phone!

X